মাইক্রোফোন কিনবেন বলে ঠিক করেছেন। কিন্তু দামে সস্তা এবং সাউন্ড কোয়ালিটি খুবই ভালো হবে এমন মাইক্রোফোন কিছুতেই খুঁজে পাচ্ছেন না। এমন সময় আপনার সামনে এসেছে মাওনো এ ইউ-১০০(Maono AU 100 Microphone) মডেলের এই মাইক্রোফোনটা। এখন এই মাইক্রোফোনটির খোঁজ খবর নিতে আপনি KontaKinbo.com এ পৌছে গেছেন।

Contents hide
1 Maono Au 100 Microphone Review in Bangla

বাহ! ভাই বাহ! খুবই ভালো!

তবে আমি বলব আপনি খুবই ভাগ্যবান কারণ এতক্ষণ পর আপনি ঠিক জায়গামতো এসেছেন। যেখানে আপনি একজন সত্যিকারের ব্যবহারকারী থেকে এই মাইক্রোফোনটার রিভিউ পাবেন।

আমি গত তিন মাস ধরে এই মাইক্রোফোনটা ব্যবহার করছি। এই মাইক্রোফোন ব্যবহারের ক্ষেত্রে কি কি সুবিধা পেয়েছি এবং এতে কি কি অসুবিধা থাকতে পারে, এটা বাজেট ফ্রেন্ডলি কিনা সব কিছু আমি উল্লেখ করে দিব। সাথে সাথে আমি এটাও বলে দিব যে এই মাইক্রোফোনটা বাজেটের তুলনায় সবচেয়ে ভালো হবে কিনা।

Maono Au 100 Microphone Review in Bangla

আবার অনেকেই রিভিউ দেখে দেখে বয়া এম-১ এর নাম শুনেছেন।  এই রিভিউতে বয়ার সাথে মাওনোর তুলনামূলক পার্থক্য দেখতে পারবেন এবং আপনারা সুন্দরভাবে একটা ডিসিশন নিতে পারবেন যে কোনটা কিনলে আপনাদের ভালো হবে। আবার বয়া এম-১ এর রিভিউও আপনি দেখে নিতে পারেন।তাহলে সুন্দর একটা ধারণা পাবেন।

 তো আর দেরী না করে চলে যাচ্ছি মূল রিভিউয়ে।

মাওনো এইউ-১০০ মাইক্রোফোনটা কাদের জন্য ভালো?

এক কথায় আগে উত্তর বলে দেই, যাদের বাজেট খুবই কম কিন্তু চাচ্ছেন ভালো সাউন্ড কোয়ালিটির মাইক্রোফোন তাদের জন্য এটাই সেরা।

এবার আসি অন্য কথায়, এই মাইক্রোফোনটা দিয়ে আপনি আপনার পিসিতে, আপনার ল্যাপটপে, আপনার সাউন্ড রেকর্ডিং ডিভাইসে, সাথে সাথে আপনার স্মার্টফোনে রেকর্ডিং করতে পারবেন। তো সত্যিকার অর্থে বলতে গেলে এই মাইক্রোফোনটা যারা ভিডিও এবং অডিও রেকর্ডিং করতে চান বা এগুলো নিয়ে কাজ করেন তাদের জন্য পারফেক্ট হবে। আপর দিকে কনটেন্ট ক্রিয়েটর বা যারা ফেসবুকে, ইউটিউবে বা অন্যান্য ভিডিও স্ট্রিমিং প্লাটফর্মের জন্য কনটেন্ট ক্রিয়েট করে থাকেন তাদের জন্য এটা বেস্ট একটা চয়েজ হতে পারে।

মাওনো এইউ-১০০ মাইক্রোফোনের ফিচার কি কি? (Maono AU 100 Microphone Features)

  • মাইক্রোফোনটির ভালো দিক হলো এটার মূল্য অন্যান্য মাইকের তুলনায় অনেকাংশে কম।
  • দাম অনুযায়ী মাইক্রোফোনের সাউন্ড কোয়ালিটি অনেক ভালো।
  • একই দামের অন্যান্য মাইক্রোফোনের তুলনায় এটাতে খুবই ক্লিয়ার সাউন্ড পাওয়া যায়।
  • এটা অ্যান্ড্রয়েড, আইওএস সাথে সাথে উইন্ডোজ  অপারেটিং সিস্টেমে ব্যবহার করা যায়।
  • মাইক্রোফোন টা কে আপনি আপনার স্মার্টফোন পিসি ডিএসএলআর সহ যাবতীয় অডিও রেকর্ডিং ডিভাইসে যুক্ত করে রেকর্ড করতে পারবেন।
  •  ডিএসএলআর ব্যবহার করার জন্য এর সাথে একটা এডাপ্টার যুক্ত আছে, যেটা আপনি ফ্রিতে পাবেন।
  • মাইক্রোফোন তার সাথে আপনি দুইটি ফোম, দুইটি ক্লিপ এবং দুইটি ব্যাটারি পাবেন। এটা অনেকাংশেই আপনাকে সুবিধা দিবে।
  • এটাতে নয়েজ ক্যান্সেলেশন সুবিধা রয়েছে। যেটা আপনার রেকর্ডিং কে আরো  আপগ্রেড করবে।
  • মাইক্রোফোনটার সাথে আপনি 6 মিটার লম্বা একটি ক্যাবল পাবেন।এতে করে অনেক দূর থেকেও আপনি রেকর্ডিং করতে পারবেন। 

মাওনো এইউ-১০০ এর ফুল স্পেসিফিকেশন(Full Specification of Maono AU-100 Microphone)

  • ব্রান্ডঃ MAONO
  • টাইপঃ Wired
  • ক্যাবলের দৈর্ঘনঃ 6m
  • কানেকশন পোর্টঃ 3.5mm
  • ফ্রিকোয়েন্সি রেঞ্জঃ 65Hz – 18kHz
  • পোলার প্যাটার্নঃ Omni-directional
  • প্রোডাক্টের ওজনঃ 0.0600 kg

বয়া এম-১ বনাম মাওনো এইউ-১০০(Boya BY M1 VS Maono AU 100)

বয়ার সাথে মাওনোর অনেক সাদৃশ্য রয়েছে তাই এর মধ্য থেকে পার্থক্য বের করা আবার সেটা তুলনা করা অনেক কষ্টসাধ্য।তবে নিচের কিছু পয়েন্ট পড়লেই আপনি সবকিছু ভালোভাবে বুঝতে পারবেন আশা করি।

প্যাকেজিং এর জিনিস

বয়া এম-১ মাইক্রোফোনের প্যাকেজে যে জিনিসগুলো দেওয়া হয় সেগুলো মাওনো এইউ-১০০ তেও দেওয়া হয় বরং মাওনো এইউ-১০০ এ ব্যাটারী, ক্লিপ ও উন্ড ফোম দেওয়া হয় ডাবল। তাহলে বয়ার একটা ব্যাটারীতে যদি ১ মাস যায় তাহলে আপনি মাওনোতে ২ মাস ব্যবহার করতে পারবেন কারন এতে ২ টা ব্যাটারী পাবেন। 

বিল্ট কোয়ালিটি

এবার আসি বিল্ট কোয়ালিটিতে, এখানে বয়া মাইকটা মাওনোর থেকে এগিয়ে আছে।কারণ বয়ার বিল্ট কোয়ালিটি মাওনোর থেকে অনেক ভালো। এর(মাওনোর) নয়েজ রিডাকশনের জন্য যে সিস্টেম ইউজ করা হয়েছে সেটার থেকে বয়ার সিস্টেমটা অনেক ভালো।

সাউন্ড কোয়ালিটি

সাউন্ড কোয়ালিটির কথা যদি বলেন তাহলে আমি এখানেও বয়া এম-১ মাইক্রোফোনটাকে এগিয়ে রাখবো। কারণ বয়ার ভয়েস রেকর্ডিং অনেক স্মুথ এবং ক্রিস্টাল ক্লিয়ার। যেটাকে লেভেলিয়ার মাইক হিসেবে মাওনোর থেকে এগিয়ে রাখতেই হয়। তবে মাওনোর সাউন্ড কোয়ালিটিও অনেক ভালো।কিন্তু বয়ার তুলনায় একটু দুর্বল কিন্তু প্রতিযোগিতায় রাখা যায়।

দামের বিবেচনায়

আসল কথায় আসি, আপনি যদি দামের দিকে তাকান তাহলে পুরাই উলটা অবস্থা। বয়ার দামের থেকে মাওনোর দাম অনেকাংশেই কম। বয়া থেকে মাওনো মাইকের দামের পার্থক্য মোটামুটি ৩০০-৪০০ টাকার মতো হবে। তবে প্রতিনিয়তই দাম বাড়ছে। এই দামে আপনি এরকম মাইক কল্পনাও করতে পারবেন না যেটা মাওনো দিচ্ছে। তাই যাদের বাজেট কম কিন্তু ভালো সাউন্ড কোয়ালিটির মাইক খুজছেন তারা চোখ বন্ধ করে মাওনো নিতে পারেন।

মাওনো এইউ-১০০ সম্পর্কিত কিছু প্রশ্ন ও উত্তর (FAQ for Maono AU 100 Microphone)

মাওনো মাইকটা কেমন হবে?

অডিও রেকর্ডিং এর জন্য মাইকটা অসম্ভব ভালো হবে এই প্রাইসে।

মাওনো এইউ ১০০ মাইকটা কি আমি ফোনে, ক্যামেরায়, কম্পিউটারে ও ল্যাপটপে ব্যবহার করতে পারবো?

জি অবশ্যই পারবেন। সাথে সাথে স্মুথ একটা এক্সপেরিয়েন্সও পাবেন।

মাওনো মাইক্রোফোনটা কি গান রেকর্ডিং এ ব্যবহার করা যাবে?

এর সাথে আপনি ছয় মিটার লম্বা ক্যাবল পাবেন এবং অসম্ভব ভালো সাউন্ড কোয়ালিটি। এটা তাই গান রেকর্ডিং এর জন্য একদম উপযুক্ত হবে। আরামসে রেকর্ড করতে পারবেন সব কিছু।

মাওনো এইউ-১০০ ব্যবহারকারীদের মতামত(What Users Say About Maono)

যারা মাওনো এইউ ১০০ মাইকটা ব্যবহার করেছেন তাদের মধ্যে ৯০% লোক এটা ব্যবহার করে সন্তুষ। আমরা বাংলাদেশ সহ বিভিন্ন দেশের ইকমার্স প্ল্যাটফর্ম যেমন বিডিশপ,দারাজ,আলিএক্সপ্রেস এর ইউজার রিভিউ বিশ্লেষন করেই এমন ডাটা পেয়েছি।

তবে অনেকেই এটার ব্যাটারী ব্যাকাপ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন এবং বলেছেন এটা রিচার্জেবল হলে আরো ভালো হতো। ২ টা ব্যাটারী দেওয়ায় অনেকেই সন্তুষ্ট। বার বার ব্যাটারী পাল্টাতে হবে না। অনেকদিন পর বদলালেই চলবে। তবে অধিকাংশই এর সাউন্ড কোয়ালিটির প্রশংসা করেছেন। যেটা বয়ার বেলাইও একই। তবে বয়ার থেকে এটার কোয়ালিটি অনেকেই একটু লো বলেছেন।

মাওনো এইউ-১০০ মাইকের দাম কত?(Maono AU 100 Microphone Price in BD)

মাওনো এইউ-১০০ মাইক্রোফোনের বিল্ট কোয়ালিটি, সাউন্ড কোয়ালিটি, অন্যান্য ফ্যাসিলিটির তুলনায় দামটা একদমই নাগালের মধ্যে। আপনারা যদি একই কনফিগারেশনের অন্য মাইক গুলোর সাথে এটার তুলনা করেন তাহলে দেখবেন মাওনো যোজন যোজন পথ এগিয়ে আছে।

সঠিক দাম বলাটা কঠিন কারন সময়ের সাথে সাথে এর দাম সব সময় বদলায়। তবে এস্টিমেটেড দাম যদি বলি তবে এটা ৬০০-৮০০ টাকার মধ্যে থাকবে। কিন্তু এটা বয়া এম-১ এর মতো এতোটা এভেলেবল না। তাই আপনাদের খুঁজে পেতে সমস্যা হতে পারে। তবে গুগলে সার্চ দিলে অনেকগুলো শপ পেতে পারেন।আবার বড় শহরের মার্কেট গুলোতেও পেতে পারেন।

This Maono AU 100 Microphone Bangla review is very unique because it has all that information for making decision to buy this product. I provide it good form, bad form and also Maono AU 100 price in bd. There is nothing left I think. I also compare boya m1 with maono au 100. I hope it will help you to make buying decision.

আমাদের অফিসিয়াল রেটিং
Overall
4.6
  • সাউন্ড কোয়ালিটি
  • বিল্ট কোয়ালিটি
  • ব্যাটারি
  • ক্যাবল
  • দাম

আমাদের সর্বশেষ মতামত

আপনি যদি একদমই নতুন হয়ে থাকেন এবং আপনার যদি বাজেট একদমই সীমিত হয়ে থাকে তবে আপনি চোখ বন্ধ করে মাওনোর এই মাইক্রোফোনটি নিয়ে নিতে পারেন। কারন এই বাজেটে এমন কোয়ালিটিফুল একটা মাইক্রোফোন কল্পনাও করা যায়না। তবে আপনার বাজেট যদি একটু ভালো হয়,আপনি যদি বাজেটটা ৩০০-৪০০ টাকা বাড়াতে পারেন তাহলে অবশ্যই বয়া এম-১ মাইকটা হবে আপনার জন্য বেস্ট চয়েজ।

Pros

এটির কোয়ালিটি হিসেবে দাম অনেক কম।

নয়েজ ক্যানসেলেশন সুবিধা রয়েছে।

এটিতে ডাবল ব্যাটারি,ডাবল ক্লিপ রয়েছে।

মাইক্রোফোনটির সাউন্ড কোয়ালিটি ভালো।

এটিকে সব ধরনের ডিভাইসে ব্যবহার করা যায়।

ডি এস এল আরে ব্যবহারের জন্য এই মাইকে আলাদা এডাপ্টার দেওয়া আছে।

উন্ড ফোম আছে তাই বাইরের নয়েজ খুব বেশি আসেনা।

তারের দৈর্ঘ্য দেওয়া আছে ৬ মিটার তাই দূর থেকে রেকর্ড করা সুবিধা।

Cons

এটির বিল্ট কোয়ালিটি খুব একটা ভালো না।

ব্যাটারি সর্বোচ্চ এক মাস চলবে।

সাউন্ড কোয়ালিটি বেস্ট না, বেটার বলা চলে।

এটাতে সুইচিং অপশন থাকায় মোবাইল ফোন এবং পিসিতে ব্যবহার করার সময় বাটনে ক্লিক করতে হয় যেটা খুবই বিরক্তিকর।

Give a Comment